sa.gif

মজুরি বোর্ডের কার্যক্রম শুরু ও নিম্নতম ১৬ হাজার টাকা মজুরি দাবিতে চেয়ারম্যানকে স্মারকলিপি দিলো গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য পরিষদ
আওয়াজ প্রতিবেদক :: 15:33 :: Tuesday March 13, 2018 Views : 22 Times

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে মানববন্ধন শেষে মজুরী বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবা ১৩ মার্চ এ কর্মসূচি পালিত হয়।কর্মসূচিতে সভানেতৃত্ব দেন ঐক্য পরিষদের সমন্বয়কারী ও জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক জোট- বাংলাদেশ’র সভাপতি মাহাতাব উদ্দিন সহিদ।
স্মারকলিপিতে বলা হয়, বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পোশাক রপ্তানিকারক দেশের শ্রমিকরা সর্বনিম্ন ৫,৩০০ টাকা মজুরীতে বর্তমানে কাজ করছে। অথচ পোশাক খাতে প্রতিযোগী দেশগুলোতে মজুরী অনেক বেশী পেয়ে থাকেন। উদাহরণ স্বরুপ ভারত ১৬৮, ভিয়েতনাম ১৫৪, কম্বোডিয়া ১৭০, পাকিস্তান ১২৪, মায়ানমার ৯০ ডলার নিম্নতম মজুরী পেয়ে থাকেন। অথচ বাংলাদেশে ৬৭ ডলার মজুরীতে কাজ করছে যা অত্যান্ত লজ্জাজনক। আমাদের এই দেশে আপনাদের এই মজুরী বোর্ড থেকে আরো ৩ টি সেক্টরে ইতি মধ্যেই মজুরী ঘোষণা করা হয়েছে। যেমন- দর্জি শ্রমিকদের জন্য ১১,৮৭০/-, জাহাজ ভাঙ্গা শ্রমিকদের জন্য ১৬,০০০/- ও ট্যানারী শ্রমিকদের জন্য (চামড়া) ৮,৭৫০ টাকা । বর্তমান সামগ্রিক বাজার পরিস্থিতি বিবেচনা করে গার্মেন্ট শ্রমিকদের মজুরী নির্ধারণ করেন নেতৃবৃন্দ ।

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, চাল, ডাল, আটাসহ নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে ক্রমাগত ব্যায় বৃদ্ধিসহ লাগামহীন ভাবে বাড়ছে বাড়ীভাড়া। সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের নিষ্ক্রিয়তা ও প্রয়োজনীয় কঠোর মনিটরিংয়ের অভাবই মূল্যবৃদ্ধির অন্যতম কারণ। শ্রমিক ও তার পরিবার কেমন আছে ? সে খবর প্রকারান্তরেই মালিকপক্ষ রাখেন না বা বিবেচনা করতে চান না। শিল্পের কতিপয় মালিক, শ্রমিককে শুধু মেশিন মনে করেন। তার প্রয়োজন শুধু প্রডাকশন টার্গেট ও মুনাফা। মজুরী বোর্ড পুনঃগঠিত হলেও বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য পরিষদ দৃশ্যমান কোন অগ্রগতি দেখছে না, মজুরী বোর্ড কচ্ছপ গতিতে অগ্রসর হচ্ছে বলে আমাদের কাছে মনে হয়। দিশেহারা শ্রমিকরা অতিদ্রুত একটি মজুরী কাঠামো প্রত্যাশা করে। শ্রমিকের জন্য ভর্তুকি দিয়ে হলেও রেশনিং চালু করা অতীব প্রয়োজন, শিল্পাঞ্চলে পর্যাপ্ত ডরমেটরী পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশীপের ভিত্তিতে গড়ে তোলা দরকার বলে আমরা মনে করি।

দেশের শিল্পের সক্ষমতা ও পারিপার্শ্বিক অবস্থা বিবেচনা করে বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য পরিষদ নিন্ম তম মজুরী সর্বমোট ১৬ (ষোল) হাজার টাকা করার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে মিছিল সহকারে মজুরী বোর্ডে এসে মজুরী বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মো. আমিরুল হক আমিন, বাংলাদেশ পোশাক শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক তাহমিনা রহমান, বাংলাদেশ বিপ্লবী গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি সালাউদ্দিন স্বপন, বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি কামরুল আহসান, জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি এম. দেলোয়ার হোসেন, জাতীয় গার্মেন্টস দর্জি সোয়েটার শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মো. রফিক, একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান, বাংলাদেশ সংযুক্ত গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. বজলুর রহমান বাবলু, বাংলা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মোহাম্মদ আলী, গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আরাফাত জাকারিয়া সঞ্চয়, বাংলাদেশ জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক জোটের সাধারণ সম্পাদক এস.এম মাসুদ।



Comments





Pakkhik Sramik Awaz
Reg: DA5020
News & Commercial:
85/1 Naya Paltan, Dhaka 1000
email: sramikawaznews@gmail.com
Contact: +880 1972 200 275, Fax: +880 77257 5347

Legal & Advisory Panel:
Acting Editor: M M Haque
Editor & Publisher: Zafor Ahmad

Developed by: Expert IT Solution